ঢাকা ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
মিঠাপুকুরে চাঞ্চল্যকর খুন ও ডাকাতির মামলার আসামী গ্রেফতার, রংপুর পুলিশ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন রংপুরে সর্বজনীন পেনশন স্কিম বিষয়ে শ্রমিকনেতাদের সাথে মতবিনিময় সভা পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে কোরবানীর পশুর হাট, আইন-শৃঙ্খলা বিষায়ক মতবিনিময় সভা আগামী ১১ মে রংপুর  শ্যামাসুন্দরী খাল পুনরজ্জীবন ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নকরণ করা হবে। পীরগাছা উপজেলা অন্নদানগর ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত রংপুরে মিঠাপুকুর সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত রংপুরে ঈদের কেনাকাটা করে ফেরার পথে বাস কেড়ে নিল ৩ জনের প্রাণ। রংপুর চেম্বার অব কর্মাসের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল মিঠাপুকুর উদ্দীপনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত রংপুরে হাট ইজারা দরপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

মিঠাপুকুরে চাঞ্চল্যকর খুন ও ডাকাতির মামলার আসামী গ্রেফতার, রংপুর পুলিশ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫০:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে

রংপুরের মিঠাপুকুরে চাঞ্চল্যকর খুন ও ডাকাতির মামলার প্রধান আসামী জাকিরকে গ্রেফতার করে মিঠাপুকুর থানা পুলিশ এই ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন।
আজ দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে এ মামলায় বিভিন্ন সময়ে আরো ৯ জন আসামীকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ। উল্লেখ্য গত ৭ ফ্রেব্রয়ারী মিঠাপুকুরের ১১ নং বড়বালা ইউনিয়নের শালিকাদহ গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেন সরকার এর পুত্র আবু রায়হান মিজানুর রহমান এর বাড়ীতে একটি খুনসহ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। মুখোশধারী ৬/৭ জনের একটি ডাকাত দল বাড়ীর প্রাচীর টপকে রুমের ভেতরে প্রবেশ করে এলোপাথারী মারপিট করে অভিযোগকারীর স্ত্রী মোর্শেদা বেগম এর মাথায় আঘাত করে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। মামলার বাদীকে মারপিট করে মৃত্যুভীতি প্রদর্শন করে স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন, নগদ টাকা, জমির দলিলসহ মোট চার লক্ষ চৌত্রিশ হাজার পাঁচশত টাকার মালামাল লুণ্ঠন করে। মামলার পর থেকে প্রধান আসামী জাকির হোসেন পলাতক থাকলেও, গতরাতে বদরগঞ্জ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের প্রধানের নামে রংপুর ও দিনাজপুরের বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতি, দস্যুতা ও মাদকের ৯ টি মামলা রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়। তবে এই ঘটনায় প্রধান আসামী জাকিরসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ক্রাইম এন্ড অপস সুলতানা রাজিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডি এসবি ইফতে খায়ের আলম,সহকারী পুলিশ সুপার ডি সার্কেল আবু হাসান মিয়া,মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ ফেরদৌস ওয়াহিদ,ওসি তদন্ত নুর আলমসহ পুলিশের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মিঠাপুকুরে চাঞ্চল্যকর খুন ও ডাকাতির মামলার আসামী গ্রেফতার, রংপুর পুলিশ সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৮:৫০:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

রংপুরের মিঠাপুকুরে চাঞ্চল্যকর খুন ও ডাকাতির মামলার প্রধান আসামী জাকিরকে গ্রেফতার করে মিঠাপুকুর থানা পুলিশ এই ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন।
আজ দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে এ মামলায় বিভিন্ন সময়ে আরো ৯ জন আসামীকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ। উল্লেখ্য গত ৭ ফ্রেব্রয়ারী মিঠাপুকুরের ১১ নং বড়বালা ইউনিয়নের শালিকাদহ গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোসেন সরকার এর পুত্র আবু রায়হান মিজানুর রহমান এর বাড়ীতে একটি খুনসহ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। মুখোশধারী ৬/৭ জনের একটি ডাকাত দল বাড়ীর প্রাচীর টপকে রুমের ভেতরে প্রবেশ করে এলোপাথারী মারপিট করে অভিযোগকারীর স্ত্রী মোর্শেদা বেগম এর মাথায় আঘাত করে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। মামলার বাদীকে মারপিট করে মৃত্যুভীতি প্রদর্শন করে স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন, নগদ টাকা, জমির দলিলসহ মোট চার লক্ষ চৌত্রিশ হাজার পাঁচশত টাকার মালামাল লুণ্ঠন করে। মামলার পর থেকে প্রধান আসামী জাকির হোসেন পলাতক থাকলেও, গতরাতে বদরগঞ্জ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের প্রধানের নামে রংপুর ও দিনাজপুরের বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতি, দস্যুতা ও মাদকের ৯ টি মামলা রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়। তবে এই ঘটনায় প্রধান আসামী জাকিরসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ক্রাইম এন্ড অপস সুলতানা রাজিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডি এসবি ইফতে খায়ের আলম,সহকারী পুলিশ সুপার ডি সার্কেল আবু হাসান মিয়া,মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ ফেরদৌস ওয়াহিদ,ওসি তদন্ত নুর আলমসহ পুলিশের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।