ঢাকা ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
আগামী ১১ মে রংপুর  শ্যামাসুন্দরী খাল পুনরজ্জীবন ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নকরণ করা হবে। পীরগাছা উপজেলা অন্নদানগর ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত রংপুরে মিঠাপুকুর সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত রংপুরে ঈদের কেনাকাটা করে ফেরার পথে বাস কেড়ে নিল ৩ জনের প্রাণ। রংপুর চেম্বার অব কর্মাসের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল মিঠাপুকুর উদ্দীপনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত রংপুরে হাট ইজারা দরপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন রংপুরে হাট ইজারা দরপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন নবনিযুক্ত শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীকে বেরোবি উপাচার্যের অভিনন্দন রংপুরে শিশুদের আঁকা  ১শ চিত্রকলা নিয়ে প্রদর্শনী

রংপুরে পৃথক অভিযানে দুই শীর্ষ সন্ত্রাসীর গ্রুপের ২ জন ভারি অস্ত্রসহ গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৬:২২:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩ ৩২৮ বার পড়া হয়েছে
রংপুরে পৃথক দুটি অভিযানে দুই শীর্ষ সন্ত্রাসী মেরিল সুমন ও ব্লাক রুবেলসহ তাদের সহযোগী ৩ জনকে দেশীয় পাইপগান ও রিভলবারসহ গ্রেফতার করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ।
বুধবার দুপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার হল রুমে সংবাদ সম্মেলনে তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) উৎপল কুমার রায়।
তিনি সাংবাদিকদের লিখিত বক্তব্য বলেন,মঙ্গলবার গভীররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তালিকাভূক্ত একাধিক মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী  রাজিব হোসেন সুমন উপরে মেরিল সুমন (২৮) ও তার গ্রুপের ১০/১২ জন শীর্ষ সন্ত্রাসী কোন অজ্ঞাত এলাকায় ডাকাতির জন্য সশস্ত্র হয়ে একত্রিত হয়েছে। এই সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মাহফুজার রহমানের নেতৃতে ১২ জনের একটি চৌকস পুলিশ দল কোতয়ালী থানাধীন ২৪নং ওয়ার্ডস্থ কামাল কাছনা তাঁতীপাড়া
ইস্টার্ন হাউজিং সংলগ্ন এলাকায়
তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী ১৫ টির অধিক মামলার আসামী রাজিব হোসেন সুমন উরফে মেরিল সুমনকে আহত অবস্থায় গ্রেফতার করা হয়।
এসময় তার দেহ তল্লাশী করে ১ টি লোহার তৈরী পুরাতন পিস্তল ও ১৬ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়।
এবং তার সঙ্গে থাকা সন্ত্রাসী বিল্লাহ(২৭) আব্দুল মমিন (৪২) জুনায়েদ হোসেন অনিক (২৫) এবং সাজ্জাদ হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। সেই
ঘটনাস্থলের আশপাশে তল্লাশী
করে ১ টি লোহ রড, ২ টি ষ্টিলের পাইপ, ২ টি চাপাতি ও ৩টি বাশেঁর লাঠিসহ ২ টি জুতা এবং লায়’লনের রশি উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।
এবং অপরদিকে একই রাতে মেট্রোপলিটন পুলিশের পরশুরাম থানায় প্রাপ্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি পেশাদার ডাকাত দলকে
 কোবারু মৌজাস্থ মামা- ভাগিনার মোড়ে একটি সাদা রঙ্গের প্রাইভেটকার তল্লাশী করে তালিকভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী নওশাদ হোসেন রুবেল উরফে ব্লাক রুবেলকে একটি দেশীয় তৈরী পাইপগান একটি চাইনিজ কুড়াল ও একটি দেশীয় ছোড়াসহ ৮ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে
পরশুরাম থানার অফিসার ইনচার্জ  রবিউল ইসলামসহ তার নেতৃত্বে চৌকশ একটি পুলিশ দল।
এবং ওই প্রাইভেট কারে তার সাথে থাকা অপর আসামি ফিরোজ হোসেন,শহিদুল ইসলাম,মোতাসিম বিল্লাহ লিয়নকে আটক করা হয়।
এবং গাড়ী তল্লাশি করে আরো ২টি দেশীয় অস্ত্র ও ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। পরশুরাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী
প্রাইভেট কারের পিছনে থাকা আরো ০৩ টি মোটর সাইকেলযোগে আসামী আলম মিয়া ও রঞ্জু মিয়াসহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন পালিয়ে যায়।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, আসন্ন দুর্গাপূজা ও জাতীয় নির্বাচন ঘিরে সহিংসতা রুখতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রংপুরে পৃথক অভিযানে দুই শীর্ষ সন্ত্রাসীর গ্রুপের ২ জন ভারি অস্ত্রসহ গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৬:২২:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ অক্টোবর ২০২৩
রংপুরে পৃথক দুটি অভিযানে দুই শীর্ষ সন্ত্রাসী মেরিল সুমন ও ব্লাক রুবেলসহ তাদের সহযোগী ৩ জনকে দেশীয় পাইপগান ও রিভলবারসহ গ্রেফতার করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ।
বুধবার দুপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার হল রুমে সংবাদ সম্মেলনে তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) উৎপল কুমার রায়।
তিনি সাংবাদিকদের লিখিত বক্তব্য বলেন,মঙ্গলবার গভীররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তালিকাভূক্ত একাধিক মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী  রাজিব হোসেন সুমন উপরে মেরিল সুমন (২৮) ও তার গ্রুপের ১০/১২ জন শীর্ষ সন্ত্রাসী কোন অজ্ঞাত এলাকায় ডাকাতির জন্য সশস্ত্র হয়ে একত্রিত হয়েছে। এই সংবাদের ভিত্তিতে কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মাহফুজার রহমানের নেতৃতে ১২ জনের একটি চৌকস পুলিশ দল কোতয়ালী থানাধীন ২৪নং ওয়ার্ডস্থ কামাল কাছনা তাঁতীপাড়া
ইস্টার্ন হাউজিং সংলগ্ন এলাকায়
তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী ১৫ টির অধিক মামলার আসামী রাজিব হোসেন সুমন উরফে মেরিল সুমনকে আহত অবস্থায় গ্রেফতার করা হয়।
এসময় তার দেহ তল্লাশী করে ১ টি লোহার তৈরী পুরাতন পিস্তল ও ১৬ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়।
এবং তার সঙ্গে থাকা সন্ত্রাসী বিল্লাহ(২৭) আব্দুল মমিন (৪২) জুনায়েদ হোসেন অনিক (২৫) এবং সাজ্জাদ হোসেন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। সেই
ঘটনাস্থলের আশপাশে তল্লাশী
করে ১ টি লোহ রড, ২ টি ষ্টিলের পাইপ, ২ টি চাপাতি ও ৩টি বাশেঁর লাঠিসহ ২ টি জুতা এবং লায়’লনের রশি উদ্ধার করে জব্দ করা হয়।
এবং অপরদিকে একই রাতে মেট্রোপলিটন পুলিশের পরশুরাম থানায় প্রাপ্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি পেশাদার ডাকাত দলকে
 কোবারু মৌজাস্থ মামা- ভাগিনার মোড়ে একটি সাদা রঙ্গের প্রাইভেটকার তল্লাশী করে তালিকভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী নওশাদ হোসেন রুবেল উরফে ব্লাক রুবেলকে একটি দেশীয় তৈরী পাইপগান একটি চাইনিজ কুড়াল ও একটি দেশীয় ছোড়াসহ ৮ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে
পরশুরাম থানার অফিসার ইনচার্জ  রবিউল ইসলামসহ তার নেতৃত্বে চৌকশ একটি পুলিশ দল।
এবং ওই প্রাইভেট কারে তার সাথে থাকা অপর আসামি ফিরোজ হোসেন,শহিদুল ইসলাম,মোতাসিম বিল্লাহ লিয়নকে আটক করা হয়।
এবং গাড়ী তল্লাশি করে আরো ২টি দেশীয় অস্ত্র ও ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। পরশুরাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী
প্রাইভেট কারের পিছনে থাকা আরো ০৩ টি মোটর সাইকেলযোগে আসামী আলম মিয়া ও রঞ্জু মিয়াসহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন পালিয়ে যায়।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, আসন্ন দুর্গাপূজা ও জাতীয় নির্বাচন ঘিরে সহিংসতা রুখতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে